Want create site? Find Free WordPress Themes and plugins.

বিভাগীয় কমিশনার, চট্টগ্রাম এর সরাসরি তত্ত্বাবধানে কুমিল্লা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে ৩য় শ্রণির কর্মচারী নিয়োগে ৪ টি পদে মোট ২৫ জনকে নিয়োগ দেয়া হল শতভাগ সচ্ছতার মাধ্যমে। বিভাগীয় কমিশনার, চট্টগ্রাম এর সভাপতিত্বে গঠিত বিভাগীয় নির্বাচনি বোর্ড, চট্টগ্রাম। এই বিভাগের সকল সরকারি দপ্তরে তৃতীয় শ্রেণির নিয়োগ প্রদান করেন এই বিভাগীয় নির্বাচনি বোর্ড। গত ২৬ জুলাই শুক্রবার হয়ে গেল কুমিল্লা ডিসি অফিসের ৪ টি পদে ২৫ জন নিয়োগের জন্য লিখিত পরীক্ষা। এই ২৫ টি পদের জন্য সমগ্র কুমিল্লা জেলা থেকে আবেদন আসে ৬৫৮০ টি, তার মধ্যে যাচাই বাছাই শেষে ৪৯৪৯ জন বৈধ আবেদনকারীকে লিখিত পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগ দেওয়া হয়। বুধবার রাতে কঠোর গোপনীয়তায় বিভাগীয় কমিশনার স্বয়ং এবং পরীক্ষা কমিটির সদস্যবৃন্দ প্রশ্ন প্রস্তুত করে সীলগালা করে রাখেন জেলা ট্রেজারিতে।

পরীক্ষা কমিটির আহবায়কের দ্বায়ীত্ব পালন করেন জনাব শংকর রঞ্জন সাহা(অতিরিক্ত সচিব), অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার সার্বিক, চট্টগ্রাম , সদস্য সচিব ছিলেন বিভাগীয় কমিশানার এর একান্ত সচিব জনাব মুহাম্মদ ইনামুল হাছান সদস্য হিসেব ছিলেন কুমিল্লার সুযোগ্য জেলা প্রশাসক জনাব মোঃ আবুল ফজল মীর, উপ পরিচালক, সরকারি কর্ম কমিশন। শুক্রবার ২৫ জন বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এর তত্ত্বাবধানে কুমিল্লার ৫ টি স্কুলে সকাল ১০:০০ টা থেকে ১১:০০ টা পর্যন্ত হওয়া এই লিখিত পরীক্ষা। প্রত্যেক কেন্দ্রে দ্বায়ীত্বে ছিলেন একজন করে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক। পরীক্ষার খাতা দেখা হয় ঐদিনই জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে, কঠোর গোপনীয়তায় কোডিং করেন বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটবৃন্দ, খাতা মূল্যায়ন করেন বিভিন্ন স্কুল কলেজ এর সিনিয়র শিক্ষকবৃন্দ।

লিখিত পরীক্ষার খাতাগুলি আবার গোপনীয়তার সাথে ডিকোডিং করে পুনর্মূল্যায়ন করেন ২০ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। সকল যাচাই বাছাই শেষে ঐদিনই রাত ১২:০০ টায় দেওয়া হয় লিখিত পরীক্ষার ফলাফল যাতে কৃতকার্য হয় ১৯১ জন, পরের দিন শনিবার কুমিল্লা জিলা স্কুলে হয় ব্যবহারিক পরীক্ষা, সেখানে নেওয়া হয় শর্ট হ্যান্ড ও বাংলা ও ইংরেজী টাইপিং টেস্ট। গত রবি ও সোমবার বিভাগীয় কমিশানারের কার্যালেয় হয় ভাইবা পরীক্ষা, ভাইবা পরীক্ষা নেন বিভাগীয় কমিশনার জনাব মো. আবদুল মান্নান এর নেতৃত্বে বিভাগীয় নির্বাচনী বোর্ড এর সদস্যবৃন্দ। সর্বোচ্চ সতর্কতা, মেধা যাচাই এর মাধ্যমে গতকাল ৩০ জুলাই রাত ১১:৩০ লিখিত পরীক্ষার মাত্র ৪ দিনের মাথায় চুড়ান্তভাবে নিয়োগ এর সরকারি আদেশ পান ২৫ জন মেধাবী পরিক্ষার্থী।

এই নিয়োগ বিষয়ে জানতে চাইলে নিজস্ব নীতি ও সততার কারনে চট্টগ্রাম এর জনপ্রিয় বিভাগীয় কমিশনার জনাব মো. আব্দুল মান্নান জানান ‘ ২০৩০ সালের মধ্যে এসডিজি বাস্তবায়ন, ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত বাংলাদেশ গড়ার লক্ষে প্রয়োজন বিপুল সৎ, মেধাবী ও দক্ষ জনবলের। বরাবরের মতই এবারও শতভাগ স্বচ্ছতা এবং সতর্কতার সাথে নিয়োগ দেওয়া হল ২৫ জন মেধাবীকে যাদের অনেকেই এতিম, কৃষকের সন্তান। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নয়নের ধারাকে আরো গতিশীল করতে এই মেধাবী তরুণরা অবদান রাখবে বলে আমার বিশ্বাস’।

নিয়োগ কমিটির সদস্য সচিব এবং বিভাগীয় কমিশনার এর পিএস জনাব ইনামুল হাছান জানান ‘গত এক সপ্তাহে বিভাগীয় কমিশনার স্যার এর নির্দেশে এই কার্যালয়ের সকল ম্যাজিস্ট্রেট এবং কর্মচারীদের অক্লান্ত পরিশ্রমের কল্যানেই এই নিয়োগ’।

নিয়োগ পাওয়াদের মধ্যে অনুভুতি জানতে চাইলে লাইব্রেরি সহকারী পদে নিয়োগ পাওয়া ফারজানা, সার্টিফিকেট সহকারী পদে নিয়োগ পাওয়া রিয়াদ সহ অন্যরা শতভাগ স্বচ্ছতায় এই নিয়োগের জন্য চট্টগ্রাম এর বিভাগীয় কমিশনার এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।
Did you find apk for android? You can find new Free Android Games and apps.

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here