#

পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে পোশাক কারখানার শ্রমিকদের ছুটি শুরু করেছে। তবে অনেক কারখানায় এখনো কাজ চলছে। ছুটি ঘোষণা করা কারখানাগুলোতে শতভাগ বেতন-বোনাস পরিশোধ করা হয়েছে বলে দাবি করেছে পোশাক কারখানা মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ ও বিকেএমইএ।

তবে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, এখনো কাজ চলমান থাকা কিছু কারখানার শ্রমিকদের বেতন ও বোনাস হয়নি। ফলে প্রায় ৯৭ শতাংশ শ্রমিকদের বেতন পরিশোধ করেছে মালিকপক্ষ। আর বোনাস দিয়েছে ৭৭ শতাংশ কারখানা মালিকরা।

তবে শতভাগ কারখানায় শ্রমিকরা যাতে বেতন-বোনাস পান, তা নিয়ে কাজ করছে পোশাক কারখানা মালিকদের এ সংগঠন দু’টি।

ঈদের ছুটির আগেই তৈরি পোশাক কারখানার শ্রমিকদের বেতন-বোনাসসহ অন্যান্য ভাতা পরিশোধের জোর দাবি জানিয়েছিল শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়।

গত ১৩ জুলাই শ্রম ভবনে মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান বলেছিলেন, ১৯ জুলাইযের মধ্য কারখানা শ্রমিকদের বেতন দিতে হবে। যেসব মালিক বেতন-বোনাস পরিশোধে ব্যর্থ হবেন, তাদের বিষয়ে আইনের আশ্রয় নেয়া হবে।

বিজিএমইএ-এর একজন দায়িত্বশীল নেতা ও শিল্প উদ্যোক্তা জানান, বিজিএমইএ সদস্যদের ৯৭ শতাংশ কারখানা বেতন পরিশোধ করেছে। কর্মরত ৭৭ শতাংশের বেশি শ্রমিক বোনাস পেয়েছেন। আর বিকেএমইএ বলছে, প্রায় শতভাগ মালিক বেতন পরিশোধ করেছে। যেসব কারখানা ছুটি হচ্ছে, তাদের বোনাস দিয়েই বন্ধ করা হচ্ছে।

জানতে চাইলে বিকেএমইএ-এর সহ-সভাপতি ফজলে শামীম এহসান বলেন, ‘আমাদের প্রায় শতভাগ কারখানায় শ্রমিকদের বেতন হয়েছে, বোনাসও হচ্ছে। ছুটির দিনই স্ব স্ব মালিক বোনাস পরিশোধ করে ছুটি দিচ্ছেন। আর যেসব কারখানায় বেতন হয়নি, তারাও ঈদের আগে বেতন দেবে।’

Facebook Comments

উত্তর দিন

Please enter your comment!
এখানে আপনার নাম লিখুন