বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী ৬৮ হাজার গ্রামে ১০ জন করে কারিগর তৈরি করা হবে

লেখক:
প্রকাশ: ৫ মাস আগে

৬৮ হাজার গ্রামে অন্তত ১০ জন করে কারিগর তৈরি করতে চান বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী আহসানুল ইসলাম টিটু। তিনি বলেন, আমরা ৬৮ হাজার গ্রামের প্রতিটি গ্রাম থেকে অন্তত ১০ জন করে কারিগর তৈরি করতে চাই। এতে ছয় লাখেরও বেশি মানুষের কর্মক্ষেত্র সৃষ্টি হবে।

মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে বাণিজ্যমেলা-২০২৪ এর সমাপনী অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি। অনুষ্ঠানে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ সচিব তপন কান্তি ঘোষের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এফবিসিসিআইএ’র সভাপতি মাহবুবুল আলম।

 

বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী বলেন, এই সরকার গঠনের পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রথম বাণিজ্যমেলা উদ্বোধন করেন। তিনি সশরীরে উপস্থিত হয়ে উদ্বোধন করার পাশাপাশি বিভিন্ন স্টল-প্যাভিলিয়ন ঘুরে দেখেন। এছাড়া বিভিন্ন পণ্য কিনে ব্যবসায়ীদের উৎসাহিত করেন তিনি। মাসব্যাপী এই লাখ মানুষের মিলনমেলার ক্ষেত্র তৈরি করে দেন প্রধানমন্ত্রী। এছাড়া তিনি বর্ষ পণ্য হিসেবে হস্তশিল্পকে ঘোষণা করেন। এখানে যারা শিল্পী ও কারিগর রয়েছেন সবাইকে তিনি ধারণ করেন। উনি সবসময় আমাদের অনুপ্রাণিত করেন কীভাবে আমাদের শিল্পকে আরও সামনের দিকে এগিয়ে নেওয়া যায়। আমাদের পরিকল্পনা আছে হস্তশিল্পকে সারা বছর ফোকাস করা।

এবারের মেলায় বিভিন্ন ক্যাটাগরির প্যাভিলিয়ন, রেস্টুরেন্ট ও স্টলে বস্ত্র, মেশিনারিজ, কার্পেট, কসমেটিক্স, ইলেক্ট্রনিক্স, ফার্নিচার, পাটজাত পণ্য, গৃহসজ্জা ও গৃহস্থালি সামগ্রী, চামড়াজাত পণ্য, স্পোর্টস গুডস, স্যানিটারিওয়্যার, খেলনা, স্টেশনারি, ক্রোকারিজ, প্লাস্টিক, মেলামাইন, হারবাল ও টয়লেট্রিজ, ইমিটেশন জুয়েলারি, প্রক্রিয়াজাত খাদ্য, ফাস্টফুড, হস্তশিল্পজাত পণ্যসহ নানা পণ্য প্রদর্শন করা হয়।

 

মেলায় মোট ৩০৪টি দেশি-বিদেশি প্রতিষ্ঠান অংশগ্রহণ করে। বাংলাদেশ ছাড়াও ৫টি দেশের ৯টি প্রতিষ্ঠান অংশ নেয়। দেশগুলো হলো- ভারত, হংকং, তুরস্ক, ইন্দোনেশিয়া ও সিঙ্গাপুর।

২১ জানুয়ারি পূর্বাচলে বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ-চায়না ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টারে বাণিজ্যমেলার উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ।