Want create site? Find Free WordPress Themes and plugins.

ফুল শ্রদ্ধা, ভালোবাসা ও পবিত্রতার প্রতীক। এমনকি শোকের সঙ্গেও জড়িয়ে আছে ফুল। তাই যে কোনো উৎসবে ফুলের দোকানগুলোতে দেখা যায় উপচে পড়া ভিড়। বসন্ত ও ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে সরগরম হয়ে উঠেছে ফুলের বাজার।

বৃহস্পতিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর বনানী, ধানমন্ডি ও শাহবাগের বিভিন্ন ফুলের দোকানে ক্রেতাদের আগমনে জমে উঠেছে বেচাকেনা।

সরেজমিনে দেখা যায়, বসন্ত ও ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে বছরের অন্য সময়ের তুলনায় সব ধরনের ফুলের দাম কয়েকগুণ বেশি। দাম বেশি হলেও বসন্ত বরণের উৎসব এবং ভালোবাসার কাছে যে বাড়তি দাম কোনো বিষয়ই নয়, তারই প্রমাণ মেলে এ ভিড়ে।

অন্যদিকে, রাজধানীর বিভিন্ন অঞ্চলে ফুলের দামের ভিন্নতাও দেখা গেছে। ধানমন্ডিতে যে দেশি গোলাপ ৩০ টাকা, সেটি শাহবাগে বিক্রি হচ্ছে ২০ টাকায়। ধানমন্ডিতে চায়না গোলাপ (দেশে উৎপাদিত) ৬০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে, যা শাহবাগে ৪০ থেকে ৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। অন্য ফুলের ক্ষেত্রেও দামের পার্থক্য রয়েছে।

শাহবাগের ফুলতলা ফ্লাওয়ার শপের মো. জলিল ফুলের বেচাকেনা প্রসঙ্গে বলেন, বেচাকেনা ভালোই হচ্ছে। এবার ভালোবাসা দিবস ও বসন্ত উৎসব একই দিনে এবং ছুটির দিন পড়েছে, তাই বিকেল থেকে বেচাকেনা আরও বাড়বে আশা করা যাচ্ছে।

শাহবাগের অন্য ফুলের দোকানদারের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, ফুলের চাহিদা যথেষ্ট পরিমাণে রয়েছে। ফুলের বেচাকেনাও জমে উঠেছে এবং সময়ের সঙ্গে সঙ্গে বেচাকেনা আরও বাড়বে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আশরাফ এবং কনক ফারজানা শাহবাগে এসেছেন ফুল কিনতে। ফুল কেনার পর আলাপকালে এ দুই শিক্ষার্থী জানান, বসন্ত উৎসব, ভালোবাসা দিবস এবং শুক্রবার বইমেলা উপলক্ষে প্রচন্ড ভিড় হবে, তাই একদিন আগেই ফুল কিনছেন তারা।

ফুলের দাম প্রসঙ্গে তারা বলেন, ভালোবাসা দিবসে ফুলের দাম প্রতিবছর বেশিই থাকে। বেশি দাম দিয়েই কিনতে হলো। কিছুই করার নেই উৎসব তো পালন করতেই হবে।

Did you find apk for android? You can find new Free Android Games and apps.

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here