smart
Want create site? Find Free WordPress Themes and plugins.

বরিশাল নগরী ও জেলার উজিরপুরে পৃথক দুটি অভিযান পরিচালনা করে বিপুল পরিমান মাদক দ্রব্যসহ তিন শীর্ষ মাদক কারবারিকে আটক করেছে র‌্যাব।

এসময় তাদের কাছ থেকে ৭৮৩ বোতল ফেন্সিডিল, ৯১ কেজি গাঁজা, ৭ হাজার ৬৮০ পিস ইয়াবার চালান এবং মাদক বিক্রির নগদ ৯ হাজার ৭০০ টাকা উদ্ধার করেছেন তারা।

র‌্যাব প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই ডাকাত, সন্ত্রাসী চাঁদাবাজ, জঙ্গি দমন, অবৈধ অস্ত্র
উদ্ধার, মাদক ব্যবসায়ী ও প্রতারকচক্রসহ বিভিন্ন অপরাধীদের গ্রেপ্তারে অগ্রণী ভূমিকা পালন
করে আসছে। গোয়েন্দা নজরদারী ও আভিযানিক কার্যক্রমের ধারাবাহিকতায় এ ধরণের অপরাধ
নিয়ন্ত্রণে র‌্যাব ইতিমধ্যেই বিশেষ সফলতা অর্জনে সক্ষম হয়েছে।

বর্তমানে অসাধু মাদক ব্যবসায়ীরা দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে দেশী বা বিদেশী মাদক
সংগ্রহ করে বরিশাল মহানগরীর কোতয়ালী থানাসহ দেশের বিভিন্ন থানা এলাকায় মাদক
ব্যবসা পরিচালনা করছে। এমন তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব গোয়েন্দা তৎপরতা ও অপারেশন চালিয়ে
আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় র‌্যাব-৮, বরিশাল, সিপিএসসি ক্যাম্পের একটি বিশেষ
আভিযানিক দল ০৮ জুলাই ২০২০ তারিখ বরিশাল মহানগরীর কোতয়ালী থানা এলাকায় একটি
মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করে।

অভিযান পরিচালনাকালে আনুমানিক ভোর ০৪.০০ ঘটিকায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে যে, কতিপয় মাদক ব্যবসায়ী মাদক জাতীয় দ্রব্য ফেন্সিডিল সরবরাহ করার জন্য পিকআপ যোগে বাকেরগঞ্জ এলাকা হতে বরিশাল শহরের দিকে আসছে। প্রাপ্ত সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাবের আভিযানিক দলটি আনুমানিক ০৪.৩০ ঘটিকায় কৌশলগতভাবে বরিশাল মহানগরীর কোতয়ালী থানাধীন রুপাতলী গোলচত্ত্বর সংলগ্ন বরিশাল টু পটুয়াখালী গামী মহাসড়কের উপর চেকপোষ্ট বসিয়ে গাড়ী থামিয়ে তল্লাশি করতে থাকে। তল্লাশির সময় ০১টি পিকআপ চেকপোষ্টের সামনে আসলে গাড়ী থামানোর জন্য সংকেত প্রদান করে। গাড়ীর চালক সংকেত পেয়ে গাড়ী চেকপোষ্টের সামনে থামায়। তখন চালক এর গতিবিধি দেখে সন্দেহ সৃষ্টি হলে উপস্তিত র‌্যাব সদস্য গাড়িটির সন্নিকটে যায়।

তখন গাড়ী হতে দৌড়ে পালানোর সময় সঙ্গীয় ফোর্স ঘেরাও পূর্বক ০২ (দুই) জন ব্যক্তিকে আটক করে। আটককৃত ব্যক্তিদ্বয়কে জিজ্ঞাসাবাদে তাদের নাম (১) মোঃ সিরাজুল ইসলাম ফকির (৪৮), পিতা-মৃত খাদেম আলী ফকির, সাং-চাঙ্গুরিয়া, থানা- উজিরপুর, জেলা-বরিশাল, (২) মোঃ লিটন হাওলাদার(৪২), পিতা-মোতালেব হাওলাদার, সাং-হলতা চরাদি, থানা-বাকেরগঞ্জ, জেলা-বরিশাল বলে জানায়। পরবর্তীতে স্থানীয় জনসাধারণের উপস্থিতিতে ধৃত আসামী মোঃ সিরাজুল ইসলাম ফকির(৪৮) এবং মোঃ লিটন হাওলাদার(৪২) এর গাড়ী তল্লাশি করে ৭৮৩ (সাতশত তিরাশি) বোতল ফেন্সিডিল ও মাদক বিক্রয়ের নগদ ৯,৭০০/- টাকা উদ্ধার করা হয় এবং মাদক পরিবহনে ব্যবহৃত গাড়ী জব্দ করা হয়।

পৃথক অভিযান পরিচালনা করে ০৮ জুলাই ২০২০ তারিখ সকাল ০৮.৪০ ঘটিকায় গোপন
সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে যে, বরিশাল জেলার উজিরপুর থানাধীন গুটিয়া ইউনিয়নের
পশ্চিম ডহরপাড়া সাকিনস্থ মোঃ হুমায়ুন কবির এর বশত বাড়ীর মধ্য অবৈধ মাদক জাতীয় দ্রব্য
রক্ষিত আছে। প্রাপ্ত সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাবের আভিযানিক দলটি আনুমানিক ০৯.৩০
ঘটিকায় কৌশলগতভাবে ঘটনাস্থলের সন্নিকটে পৌঁছলে র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে
পালানোর চেষ্টাকালে র‌্যাব সদস্যরা ঘেরাও পূর্বক ০১ (এক) জন ব্যক্তিকে আটক করে।
আটককৃত ব্যক্তিকে জিজ্ঞাসাবাদে তার নাম (১) ফাতেমা আক্তার(৩৫), স্বামীঃ মোঃ হুমায়ুন
কবীর, সাং- পশ্চিম ডহর পাড়া, থানাঃ উজিরপুর, জেলাঃ বরিশাল বলে জানায়। পরবর্তীতে স্থানীয়
জনসাধারণের উপস্থিতিতে ধৃত আসামী ফাতেমা আক্তার(৩৫) এর দেখানো মতে তার বশত
বাড়ির মধ্য থেকে ৯১ (একানব্বই) কেজি গাঁজা এবং ৭,৬৮০ (সাত হাজার ছয়শত আশি)

পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করে। জিজ্ঞাসাবাদে ধৃত আসামীরা আরও স্বীকার করে যে, তারা
যোগসাযোসে দীর্ঘ দিন যাবৎ দেশের বিভিন্ন এলাকা হতে ফেন্সিডিল, ইয়াবা ট্যাবলেট
এবং গাঁজার চালান সংগ্রহ করে বরিশাল জেলার বিভিন্ন থানা এলাকায় বিক্রয় করে
আসছে। গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে বরিশাল মহানগরীর কোতয়ালী থানায় এবং
বরিশাল জেলার উজিরপুর থানায় পৃথক মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়।

Did you find apk for android? You can find new Free Android Games and apps.

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here