#

করোনা রোগীর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা আইসিইউ ওয়ার্ডে হামলা-ভাঙচুর চালিয়েছে রোগীর স্বজনরা।

এ ঘটনায় রোগীর তিন স্বজনকে আটক করা হলেও পরবর্তীতে দোষ স্বীকার করে ক্ষমা চাওয়ায় বিষয়টি মীমাংসা করা হয়।

শনিবার বিকেল সাড়ে ৪টায় করোনা রগী মো. কামরুজ্জামান (৪০) মারা যান। তিনি পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার বাসিন্দা।

গত ১৩ জুলাই করোনা ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। অবস্থা খারাপ হলে তাকে আইসিইউতে শিফট করা হয়।

প্রত্যক্ষদর্শী আইসিইউ ওয়ার্ডের সিনিয়র নার্স নয়ন জানান, রোগীকে মৃত ঘোষণা করার সাথে সাথে তাদের স্বজনরা রোগী বেডের মনিটর ভাঙচুর এবং তার ছিঁড়ে ফেলেন।

এমনকি তারা ইন্টার্ন চিকিৎসক ও দায়িত্বরত নার্সদের উপর হামলা চালানোর চেষ্টা চালায়। এ সময় ৩ জনকে আটক করে কোতোয়ালী থানায় খবর দেয়া হয়।

রোগীর স্বজনদের অভিযোগ ছিল, চিকিৎসা অবহেলায় তাদের রোগী মারা গেছে।

তিনি আরো জানান, কোতোয়ালী থানার ওসি নুরুল ইসলাম আসার পর পরিচালকের কক্ষে বসে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার প্রক্রিয়া শুরু হয়।

এ সময় মৃত রোগীর স্বজনরা তাদের দোষ স্বীকার করে ক্ষমা চাওয়ায় হাসপাতালের পরিচালক তাদের ক্ষমা করে দিয়ে বিষয়টি মীমাংসা করে দেন।

হাসপাতালের পরিচালক ডা. সাইফুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, রোগীর স্বজনরা তাদের ভুল স্বীকার করে ক্ষমা চেয়েছেন। তাছাড়া তারাওতো তাদের স্বজন হারিয়েছেন।

মানবিক দিক বিবেচনা করে কোতোয়ালী থানার ওসি’র উপস্থিতিতে বিষয়টি মীমাংসা হয়েছে।

Facebook Comments

উত্তর দিন

Please enter your comment!
এখানে আপনার নাম লিখুন