Want create site? Find Free WordPress Themes and plugins.

স্টেডিয়ামটির অভ্যন্তরে দুটি প্যাভিলিয়ন, খেলোয়াড় কক্ষ এবং ড্রেসিং রুমসহ সংশ্লিষ্ট জায়গাগুলো আন্তর্জাতিক মানের করে গড়ে তুলতে চলছে শেষ পর্যায়ের প্রস্তুতি। আন্তর্জাতিক মানের এই টুর্নামেন্টকে ঘিরে প্রায় অর্ধ কোটি টাকা ব্যয়ে উন্নয়ন চলছে বরিশাল স্টেডিয়ামে। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) এর পরিচালক ও বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থার সদস্য সচিব আলমগীর খান আলো এই তথ্য জানিয়েছেন।

জানা গেছে, বিগত পাকিস্তান আমলে বর্তমান নগরীর বান্দ রোডস্থা চাঁদমারী এলাকায় স্থাপন করা হয় শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত স্টেডিয়াম। পরবর্তীতে ২০০০ সালের দিকে আধুনিকায়নের ছোঁয়া লাগে স্টেডিয়ামটিতে। পূর্বের গ্যালারি ভেঙে প্রায় অর্ধ লাখ দর্শক ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন সুবিশাল গ্যালারি, দুটি প্যাভিলিয়ন এবং স্টেডিয়ামটিতে ডে-নাইট ম্যাচ খেলার জন্য স্থাপন করা হয় চারটি ফ্লাড লাইট। এছাড়াও শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত স্টেডিয়ামকে বিভিন্ন উন্নয়নের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক মানের স্টেডিয়ামে রূপান্তরিত করা হয়।

তবে মাঝে মধ্যে জাতীয় লীগের দুই-একটি খেলা হলেও অনেক কাঠখড় পুড়িয়ে আন্দোলনের পরেও আধুনিক ও আন্তর্জাতিক মানের সুবিশাল এই স্টেডিয়ামে আদৌ গড়ায়নি আন্তর্জাতিক মানের কোনো ম্যাচ। এমনকি স্থাপনের পর থেকে এ পর্যন্ত একবারের জন্যও জ্বলেনি ফ্লাড লাইটগুলো। ফলে বিকল হয়ে পড়ে আছে বহু মূল্যমানের ওইসব ফ্লাড লাইট।

অবশ্য বরিশালবাসীর প্রাণের দাবি নিজ ঘরের মাঠে বসে উপভোগ করবেন আন্তর্জাতিক মানের খেলা। দীর্ঘ বছর পরে হলেও সেই স্বপ্ন পূরণ হতে চলেছে। বরিশাল স্টেডিয়ামে গড়াচ্ছে শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব ১৯ দলের চারদিনের টেস্ট ম্যাচ। দুই দল বরিশালে আসবে ২৩ অক্টোবর। ম্যাচ শুরুর আগে তারা সেখানে অনুশীলন করবেন।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পরিচালক আলমগীর হোসেন আলো বলেন, আন্তর্জাতিক এই টেস্ট ম্যাচে পুরোপুরি সহায়তা করছে আইসিসি। তবে এর উদ্যোক্তা বিসিসি। আমার দীর্ঘ প্রচেষ্টায় অনূর্ধ্ব ১৯ দলের ম্যাচটি বরিশাল স্টেডিয়ামে গড়াচ্ছে। অবশ্য তার আগে ৩০ অক্টোবর খুলনা যাবে দল দুটি। সেখানে বাংলাদেশ বনাম শ্রীলঙ্কার মধ্যকার চারদিনের টেস্ট ম্যাচ হবে।

তিনি বলেন, বরিশাল স্টেডিয়ামটি আন্তর্জাতিক মানের হলেও অভ্যন্তরীন কিছু সমস্যা রয়েছে। যে দুটি প্যাভিলিয়ন ও খেলোয়াড়দের ড্রেসিং রুম রয়েছে, তা উন্নত নয়। এজন্য বিসিবির উদ্যোগে বরিশাল স্টেডিয়ামে ১০টি এসি বসানো হচ্ছে। কার্পেটিং করে সাজানো হচ্ছে খেলোয়াড়দের ড্রেসিং রুম। ডাইনিংয়ে দেয়া হচ্ছে উন্নতমানের ৬০টি চেয়ার। খেলোয়াড়রা যাতে আন্তর্জাতিক মানের সকল সুযোগ সুবিধা পায়, সেভাবে সাজানো হচ্ছে বরিশাল স্টেডিয়ামকে। তাছাড়া খেলোয়াড়দের থাকার ব্যবস্থা করা হচ্ছে তারকা মানের হোটেল গ্রান্ড পার্কে। এই ম্যাচকে কেন্দ্র করে বরিশাল স্টেডিয়ামে প্রায় অর্ধ কোটি টাকার উন্নয়ন হচ্ছে।

বিসিবির এই কর্মকর্তা বলেন, এরই মধ্যে বিসিবির সচিব এবং প্রকৌশলীরা বরিশাল স্টেডিয়াম পরিদর্শন করে গেছেন। তারা বিভিন্ন দিক-নির্দেশনা দিয়েছেন। তাদের মতো করেই স্টেডিয়াম আন্তর্জাতিক মানের করে সাজানো হচ্ছে। তাছাড়া চারদিনের এই টেস্ট ম্যাচ উপভোগ করতে কোনো টিকেটের প্রয়োজন হবে।

জানা গেছে, বাংলাদেশের অনূর্ধ্ব ১৯ দলটি চলতি বছর এশিয়া কাপ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনালে ভারতের সাথে খেলে রানার্সআপ হয়। ওই খেলায় বাংলাদেশের অগ্রগতির কারণেই শ্রীলঙ্কার সঙ্গে দুটি টেস্ট ম্যাচ বরিশাল ও খুলনা স্টেডিয়ামে খেলার সুযোগ পায়।

Did you find apk for android? You can find new Free Android Games and apps.

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here