Want create site? Find Free WordPress Themes and plugins.

ম্যাচটা ছিল আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচ। সিঙ্গাপুর ন্যাশনাল স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত এই ম্যাচে ৫ বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ব্রাজিলের মুখোমুখি হয়েছে আফ্রিকান সিংহ সেনেগাল। তবে এই ম্যাচে সাদিও মানেদের হারাতে পারেনি নেইমার, রবার্তো ফিরমিনোর ব্রাজিল। ১-১ গোলে ড্র করেই মাঠ ছাড়তে হয়েছে ব্রাজিলকে।

আগের ম্যাচে পেরুর কাছে শেষ মুহূর্তের গোলে হারতে হয়েছিল তিতের শিষ্যদের। ম্যাচের ৬৩ মিনিটে মাঠে নেমেছিলেন সুপারস্টার নেইমার। কিন্তু তিনিও ঠেকাতে পারলেন না দলের পরাজয়। আজ ছিল তার আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারে শততম ম্যাচ। কিন্তু মাইলফলকের এই ম্যাচে দলকে জেতাতে পারলেন না তিনি।

সিঙ্গাপুরে আজ সেনেগালের বিপক্ষে তিতের পরিকল্পনা ছিল দলকে জয়ের রাস্তায় ফেরানো। কিন্তু সম্ভব হলো না। নেইমার নিজে গোল করতে পারলেন না। উল্টো গোল মিসের মহড়া দিয়েছেন।

ক্লাবে এক সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে খেলেন লিভারপুলের রবার্তো ফিরমিনো এবং সাদিও মানে। কিন্তু জাতীয় দলের হয়ে দু’জন আজ হলেন পরস্পরের শত্রু। দেশপ্রেম বলে কথা। এমন ম্যাচের ৯ম মিনিটেই কিন্তু ফিরমিনোর গোলে এগিয়ে যায় ব্রাজিল। গ্যাব্রিয়েল হেসুসের পাস থেকে বল পেয়ে ডান পায়ের শটে সেনেগালের জালে বল জড়ান ফিরমিনো।

কিন্তু প্রথমার্ধের একেবারে শেষ মুহূর্তে, ইনজুরি সময়ে (৪৫ +১ মিনিট) ভুলটা করে বসেন ব্রাজিলেন মার্কুইনহোস। বক্সের মধ্যে ফাউল করে বসেন সাদিও মানেকে। রেফারি সঙ্গে সঙ্গে পেনাল্টির বাঁশি বাজান। স্পট কিক থেকে গোল করেন ফামারা দিয়েধিও। সমতায় ফিরে আসে সেনেগাল।

দ্বিতীয়ার্ধে আর কোনো দলই গোল করতে পারলো না। তবে মুহুর্মুহু আক্রমণ করেছে ব্রাজিল। নেইমার বেশ কয়েকটি গোলের দারুণ সুযোগ তৈরি করেছিলেন। কিন্তু কোনো গোলই করতে পারেননি। শেষ পর্যন্ত ১-১ গোলে ড্র নিয়েই মাঠ ছাড়তে হলো ব্রাজিলকে।

Did you find apk for android? You can find new Free Android Games and apps.

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here