Want create site? Find Free WordPress Themes and plugins.

সিলেট নগরের চৌহাট্টা মোড়ে দায়িত্ব পালনকালে এক ট্রাফিক পুলিশকে বেধড়ক পিটিয়ে আহতের ঘটনায় জড়িত বিএম তানজিল আহমদকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

আহত ট্রাফিক পুলিশ সদস্য মোহাম্মদ আলীর দায়ের করা মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে তানজিল আহমদকে কারাগারে পাঠানো হয়। এ ঘটনায় সিলেট কোতোয়ালি থানায় পুলিশের ওপর হামলার অভিযোগ এনে মামলা করেন ট্রাফিক পুলিশ সদস্য মোহাম্মদ আলী।

রোববার দুপুরে সিলেটের মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে অভিযুক্ত তানজিল আহমদকে পাঠায় পুলিশ। পরে আদালত শুনানি শেষে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (গণমাধ্যম) জেদান আল মুসা বলেন, ট্রাফিক পুলিশ সদস্যকে পিটিয়ে আহতের ঘটনায় বিএম তানজিল আহমদকে আসামি করে শনিবার কোতোয়ালি থানায় মামলা দায়ের করা হয়। ওই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে তাকে আদালতের মাধ্যমে সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

শনিবার বিকেলে তানজিল আহমদ মোটরসাইকেল নিয়ে চৌহাট্টা থেকে জিন্দাবাজার অভিমুখে ওয়ানওয়ের উল্টো পথ দিয়ে প্রবেশের চেষ্টা করেন। এ সময় সিলেট মহানগর পুলিশের দায়িত্বরত ট্রাফিক সদস্য মোহাম্মদ আলী ওয়ানওয়ে সড়ক দিয়ে মোটরসাইকেল নিয়ে যেতে তানজিলকে বাধা দেন। কিন্তু সিগন্যাল অমান্য করে এগিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন তানজিল।

এ অবস্থায় ট্রাফিক পুলিশের সদস্য আলী দৌড়ে গিয়ে মোটরসাইকেলের গতিরোধ করলে তানজিল মোটরসাইকেল থেকে নেমে ট্রাফিক পুলিশের হাতের লাঠি কেড়ে নিয়ে বেধড়ক পেটাতে শুরু করেন। পরে ট্রাফিক পুলিশের অন্য সদস্যরা এসে তানজিল আহমদকে গ্রেফতার করেন।


উল্টো পথে গাড়ি যেতে না দেয়ায় ট্রাফিক পুলিশকে মারধর


সিলেট নগরের চৌহাট্টা মোড়ে দায়িত্ব পালনকালে এক ট্রাফিক পুলিশকে বেধড়ক পিটিয়ে আহত করেছেন এক ব্যাংক কর্মকর্তা। ট্রাফিক পুলিশের উপর হামলাকারী বি এম তানজিল আহমদ সুনামগঞ্জ জেলা পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকের ব্যবস্থাপক।

২৬ জানুয়ারী শনিবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে নগরের চৌহাট্টা মোড়ে এ ঘটনা ঘটে। আহত ট্রাফিক পুলিশ সদস্য মোহাম্মদ আলীকে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পাশাপাশি ট্রাফিক পুলিশের সদস্যকে পেটানোর ঘটনায় জড়িত তানজিল আহমদকে আটক করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বিকেলে তানজিল আহমদ মোটরসাইকেল নিয়ে চৌহাট্টা থেকে জিন্দাবাজার অভিমুখে ওয়ানওয়ের উল্টো পথ দিয়ে প্রবেশের চেষ্টা করেন। এ সময় সিলেট মহানগর পুলিশের দায়িত্বরত ট্রাফিক সদস্য মোহাম্মদ আলী ওয়ানওয়ে সড়ক দিয়ে মোটরসাইকেল নিয়ে যেতে তানজিলকে বাধা দেন। কিন্তু সিগন্যাল অমান্য করে এগিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন তানজিল।

এ অবস্থায় ট্রাফিক পুলিশের সদস্য আলী দৌড়ে গিয়ে মোটরসাইকেলের গতিরোধ করলে তানজিল মোটরসাইকেল থেকে নেমে ট্রাফিক পুলিশের হাতের লাঠি কেড়ে নিয়ে বেধড়ক পেটাতে শুরু করেন।

একপর্যায়ে উপস্থিত জনতার হস্তক্ষেপে ওই কর্মকর্তা থামলে অদূরে থাকা ট্রাফিক পুলিশের অন্য সদস্যরা এসে তাকে আটক করেন। এ সময় তার ব্যবহৃত মোটরসাইকেলটি জব্দ করে পুলিশ।

আটক তানজিল আহমদ সিলেটের বিয়ানীবাজার উপজেলার উত্তর দুবাগ গ্রামের ফরিদ উদ্দিনের ছেলে। তিনি সুনামগঞ্জ জেলা পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকের ব্যবস্থাপক বলে জানা গেছে।

সিলেট মহানগর পুলিশের (ট্রাফিক) উপ-পুলিশ কমিশনার ফয়সাল মাহমুদ বলেন, জনসমক্ষে পুলিশের ওপর হামলার ঘটনায় আটক ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। আটক ব্যক্তি ও তার মোটরসাইকেল জব্দ করে কোতোয়ালি থানায় রাখা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

Did you find apk for android? You can find new Free Android Games and apps.

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here