Want create site? Find Free WordPress Themes and plugins.

চীনের উহান শহর থেকে গত বছরের ডিসেম্বরে করোনাভাইরাসের উদ্ভব হয়। পরে তা সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে। প্রথম দফার চীন সংক্রমণ সামলে নিলেও দ্বিতীয় দফায় ফের সংক্রমণ শুরু হয়েছে। এ পরিস্থিতির মধ্যেই দেশটিতে আরেক প্রাণঘাতী রোগ বিউবনিক প্লেগের প্রাদুর্ভাব ধরা পড়েছে।

চীনের মঙ্গোলিয়া অঞ্চলের একটি শহরে বিউবনিক প্লেগ ছড়িয়েছে। মহামারির আশঙ্কায় জরুরি সতর্কতা জারি করা হয়েছে সেখানে।

চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম পিপলস ডেইলির বরাত দিয়ে বিবিসি জানিয়েছে, স্বায়ত্তশাসিত ইনার মঙ্গোলিয়া অঞ্চলের বায়ানুর শহরে প্লেগ প্রতিরোধে তৃতীয় মাত্রার সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

শনিবার বায়ানুরের একটি হাসপাতালে প্রথম বিউবনিক প্লেগ রোগী শনাক্ত হয়। এর পরপরই সতর্কতা জারির সিদ্ধান্ত নেয় দেশটির সরকার। তবে তিনি কিভাবে আক্রান্ত হয়েছেন তা এখনও জানা যায়নি।

কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, আক্রান্ত ব্যক্তি সুস্থ আছেন। তাকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

বায়ানুর কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, বর্তমানে এই শহরের মানুষের মধ্যে প্লেগ মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে। এ কারণে সবার আত্মসুরক্ষা ব্যবস্থা উন্নত করতে হবে এবং সতর্ক হতে হবে। শরীরে যেকোনও ধরনের অস্বাভাবিক উপসর্গ দেখা গেলে তা সঙ্গে সঙ্গে কর্তৃপক্ষকে জানাতে হবে।

গত বছরের মে মাসে মঙ্গোলিয়া প্রদেশে বিউবোনিক প্লেগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান দুইজন। তখন জানানো হয়, আক্রান্ত দুইজন মারমোটের (ইঁদুরজাতীয় প্রাণী) মাংস খেয়েছিলেন। সেখান থেকেই এই রোগটি তাদের শরীরে ছড়ায়।

প্লেগ রোগের তিনটি ধরনের মধ্যে অন্যতম হচ্ছে বিউবনিক প্লেগ। ব্যাকটেরিয়াজনিত এই অসুখ ইঁদুরজাতীয় প্রাণীদের শরীরে থাকা পোকা বা আশপাশে বসবাসকারী মাছির মাধ্যমেও ছড়াতে পারে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্য অনুযায়ী, উপযুক্ত চিকিৎসা না পেলে ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই অসুখটি প্রাপ্তবয়স্ক একজন রোগীকে মেরে ফেলতে পারে।

এ কারণে মানুষজনকে এ প্রাণী শিকার থেকে বিরত থাকার পরামর্শ দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

Did you find apk for android? You can find new Free Android Games and apps.

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here