উবার বিল সাড়ে ৭ কোটি রুপি!

লেখক:
প্রকাশ: ৪ মাস আগে

রোজই যাতায়াত করেন অটোতে। কত ভাড়া লাগে, তাও জানা। কিন্তু ৬২ টাকার অটো বুক করে এক যুবকের কাছে যা বিল এলো, তা মাথা ঘুরিয়ে দেওয়ার মতো। দেখলেন, ৬২ টাকার বদলে বিল এসেছে ৭ কোটিরও বেশি রুপি। অটো থেকে নামার আগেই অ্যাকাউন্টে এই বিল দেখে যাত্রীর মনে একটাই প্রতিক্রিয়া, রকেটে এলেও হয়তো এর থেকে কম খরচ পড়তো!

অবিশ্বাস্য হলেও এমনই অদ্ভুত ঘটনা ঘটেছে ভারতের নয়ডা শহরের বাসিন্দা দীপক তেঙ্গুরিয়ার সঙ্গে। জানা যায়, অফিসে যাওয়ার জন্য তিনি উবার অ্যাপ থেকে অটো বুক করেছিলেন। ভাড়া দেখিয়েছিল ৬২ টাকা। কিন্তু নির্দিষ্ট গন্তব্যে পৌঁছনোর পর তিনি যখন পেমেন্ট করতে গেলেন, তখন দেখলেন ৬২ টাকা নয়, অ্যাপে দেখাচ্ছে তার ভাড়া বাবদ বকেয়া ৭ দশমিক ৬৬ কোটি রুপি।

 

কোটি টাকার বিল পেয়ে হকচকিয়ে যান দীপক। উবারের এই কীর্তি তিনি তার এক্স হ্যান্ডেলে পোস্ট করেন। পোস্টটি ভাইরাল হওয়ার পর উবার কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে ক্ষমা চাওয়া হয়। পাশাপাশি বিষয়টি খতিয়ে দেখার হচ্ছে বলেও জানায় উবার।

দীপক ও তার বন্ধু আশীষ মিশ্র এক্স হ্যান্ডেলে একটি ভিডিয়ো পোস্ট করেন। তাতে তাদের উবারের পাঠানো বিল নিয়ে আলোচনা করতে দেখা যায়। ভিডিওতে আশীষ দীপককে বলেন, কত টাকা বিল এসেছে, তা দেখাতে। দীপক তার মোবাইল খুলে দেখান, ৭ কোটি ৬৬ লাখ ৮৩ হাজার ৭৬২ রুপি বিল পাঠানো হয়েছে।

 

পুরো বিলের মধ্যে ওয়েটিং চার্জ বাবদ ৫ কোটি ৯৯ লাখ ৯ হাজার ১৮৯ রুপি ও প্রোমোশন কস্ট বাবদ ৭৫ রুপি ধরা হয়েছে। অথচ দীপকের দাবি, উবার থেকে যে অটোটি এসেছিল, তার জন্য এক মিনিটও অপেক্ষা করতে হয়নি।

দীপক বলেন, জীবনে কখনো একসঙ্গে এতগুলি শূন্য একসঙ্গে গুনিনি। তার বক্তব্যের সূত্র ধরেই তার বন্ধু আশীষ মিশ্র বলেন, তুমি চন্দ্রযান বুক করলেও হয়তো এত টাকা খরচ হতো না।

আশীষ মজা করেই লেখেন, আজ সকালে উবার ইন্ডিয়া দীপককে এত বড়লোক করে দিল যে, ও উবারের ফ্রাঞ্চাইজি নেওয়ার কথা ভাবছে। এটা ভালো বিষয় যে ট্রিপ এখনো ক্যান্সেল হয়নি। ৬২ টাকার অটো বুক করে দীপক নিমেষেই কোটিপতি দেনাগ্রস্ত হয়ে গেলো!

সূত্র: এনডিটিভি